চাইনিজ প্রবাদগুলো সারা দুনিয়াব্যাপী খুবই জনপ্রিয়। প্রাচীন চীনে জ্ঞান এবং দর্শনের যে চর্চা হতো তা আসলে এখন পর্যন্ত অনেক বেশী অনুসরণীয় রয়ে গেছে। আমি নিজেও মাঝে মঝে এগুলো নিয়ে ঘাঁটাঘাঁটি করি গুগলে। প্রচুর শিক্ষণীয় বিষয় পাওয়া যায়। নিজের জীবনেরই অনেক কিছুর সাথে রিলেট করা যায়। আমি অনেক ক্ষুদ্র একটা মানুষ। তবে মাঝে মাঝে ফেসবুকে ক্যারিয়ার সংক্রান্ত পোস্ট দেওয়ার কারণে অনেকেই আসে আমার কাছে পরামর্শ চাইতে। যারা পরামর্শ চাইতে আসে তাদের কাছ থেকেও জীবনের অভিযোগ, বঞ্চনার কথা শোনা হয়। এজন্য অন্য মানুষদের জীবনের বিভিন্ন বিষয়েও রিলেট করা যায় জীবনের এসব শিক্ষার।

যারা পরামর্শ চেয়ে ইনবক্স করেন তাদের অনেকেই খুব গঠনমূলক প্রশ্ন করেন, অনেকের প্রশ্ন শুনে হাসি পায় আবার রাগও হয়। যেমন আজও ইনবক্সে একজনের প্রশ্ন শুনে হাসবো, রাগ করবো নাকি দুঃখিত হবো বুঝতে পারছিলাম না!

উনি তিন মাস ধরে ব্যাংক জব এবং বিসিএস জন্য প্রিপারেশন নেওয়া শুরু করেছেন। উনার কাছে মনে হচ্ছে কিছুই যেন আগাচ্ছেনা!

মাত্র তিন মাস! এতো তাড়াতাড়ি অধৈর্য্য হয়ে গেলে কিভাবে হবে রে ভাই!

উনার মতো এ ধরণের সমস্যা অনেকেরই হয়। এতোদিন গায়ে হাওয়া লাগিয়ে ঘুরেছেন। চাকুরীর পরীক্ষা দেওয়ার আগে কখনও ফিল ই করেননি বাস্তবতা কত নির্মম!

যাহোক, চাইনিজ প্রবাদের কথা দিয়ে শুরু করেছিলাম। এদের এই সমস্যার সমাধান আছে জনপ্রিয় কয়েকটি চাইনিজ প্রবাদেঃ

. All things are difficult at the start.

একটা নতুন কাজ শুরু করতে গেলে সেটা খুবই কঠিন লাগে। শুরুতে আপনার কাছে একটা কাজের সবকিছুই নতুন; এর কোন পার্টের সাথেই ফ্যামিলিয়ার না আপনি। সুতরাং প্রথমে একটা কাজের সাথে পরিচিত হতে হবে, তারপর দেখবেন সেটা আস্তে আস্তে সোজা মনে হচ্ছে। যে মানুষটা একটা কাজ গত একবছর ধরে করছে তার পারফরম্যান্স আর যে ১ মাস ধরে করছে তার পারফরম্যান্স একই হবে এরকম আশা করাটা বোকামী ছাড়া কিছুই না।

. It just needs hard work to grind an iron rod into a needle

কষ্ট করতে হবে… ভাই! সব জায়গায় ফ্রি খাওয়ার আশা বাদ দেন।

. It takes more than one cold day for a river to freeze a meter deep.

বড় কাজ কখনো একদিনে হয় না। ভালো ফলাফলের জন্য একটা মিনিমাম সময় লাগে। তাড়াহুড়ো করে করতে গেলেই ভেঙ্গে পড়বে। এর আগে একটা পোস্ট দিয়েছিলাম এটা নিয়ে; একটা বহুতল বিল্ডিং নির্মাণের এক্সাম্পল দিয়ে।

. You can’t get fat with one mouthful.

অর্থ আগেরটার মতোই। একদিনেই সব খেয়ে কখনও মোটা হতে পারবেন না।

. Watch till clouds part to see moonlight.

এটার মেসেজ খুব গুরুত্বপূর্ণ। অল্প কিছুদিন কাজ করেই অধৈর্য্য হয়ে গেলে হবেনা; শেষ পর্যন্ত ওয়েট করতে হবে রেজাল্টের জন্য।

উপরের মেসেজগুলো যে আপনার জবের এক্সামের প্রিপারেশন নিতে গেলেই প্রযোজ্য বিষয়টা এরকম না। জীবনের প্রতিটি স্টেপেই এগুলো কাজে লাগে। প্রতিটি লক্ষ্যে পৌঁছাতে গেলেই দেখবেন এগুলো মেইনটেইন করা লাগে।

যাহোক, স্কুলজীবনে দিয়ে আসা ৬-৭ বছরের ফাঁকির প্রায়শ্চিত্ত যদি মনে করেন ৩-৪ মাসেই হয়ে যাবে, তাহলে বোকার স্বর্গে বাস করছেন। কষ্ট করতে থাকেন অধৈর্য্য না হয়ে, ভালো ফলাফল পাবেনই।

ফেরদৌস কবির

ডেপুটি ডিরেক্টর, বাংলাদেশ ব্যাংক

এমবিএ, আইবিএ (ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়)