বাংলাদেশ ব্যাংক সহকারী পরিচালক (জেনারেল) পদে নিয়োগের উদ্দেশ্যে ইতিমধ্যেই এডমিট কার্ড উঠানোর জন্য বলা হয়েছে। অনেকেই ইনবক্সে জানতে চেয়েছেন কতদিনের মধ্যে পরীক্ষা হতে পারে। আমার মতে সব কিছু ঠিক থাকলে ৩-৪ মাসের মধ্যেই প্রিলিমিনারি পরীক্ষা হওয়ার কথা।

এখন প্রশ্ন হচ্ছে এই সল্প সময়ে কিভাবে প্রিপারেশন নিবেন প্রশ্নটি অনেকেই আমাকে করে থাকে।

আমি বলি দেখুন শর্টকাট কোন প্রস্তুতি আমার জানা নেই। সফলতা কখোনো শর্টকাট এ আসেনা। যদি ম্যাথ বা ইংরেজির ব্যাসিক ঠিক না থাকে তবে কোনভাবেই এই সময়ে প্রিপারেশন নেয়া সম্ভব নয়। তাই যাদের একদম কোন প্রিপারেশন নেই তাদের জন্য আমার এই পোস্ট নয়।

আমার আজকের সাজেশন যারা ইতোমধ্যে ব্যাংকে চাকুরী করছেন অথবা আগে থেকে যাদের ম্যাথ ও ইংরেজিতে ব্যাসিক স্ট্রং তাদের জন্য।

প্রথমেই আসি বাংলা, সাধারণ জ্ঞান ও কম্পিউটার নিয়েঃ

আপনি উপরের কোন বিষয়ে ভালো না হলেও সমস্যা নেই। এখন থেকে কারেন্ট এফেয়ার্স পড়ুন নিয়মিত। এখান থেকেই বাংলা, কম্পিউটার ও সাধারণ জ্ঞান ও পড়তে পারেন। এরপরও যদি আপনার ক্ষুধা না মেটে বাংলা নবম-দশম শ্রেণীর বাংলা ২য় পত্র এবং কম্পিউটার পড়বেন Examveda থেকে। যথেষ্ট, আর দরকার নাই।

এবার ম্যাথ ও ইংরেজিঃ ধরেই নিয়েছি আপনি ম্যাথ ও ইংরেজিতে দুর্বল নন। তাই আপনার কাজ হবে বিগত বছরের প্রশ্ন সলভ করা। কোন ফ্যাকাল্টি বেজ প্রশ্ন ব্যাংক কিনবেন না। সামগ্রিক প্রশ্ন আছে এরকম বই কিনুন। ব্যাংক প্রশ্ন সলভ করার পাশাপাশি আইবিএ এর বিবিএ ও এমবিএ এর প্রশ্ন ব্যাংক সলভ করুন। আইবিএ প্রশ্নের কথা অনেকের পছন্দ নাও হতে পারে কিন্তু মনে রাখবেন আইবিএ গ্রাজুয়েটরা ব্যাংক পরীক্ষায় সচারাচর প্রিলি রিটেনে ফেল করেনা।

রাইটিংঃ রাইটিং এর জন্য রিসেন্ট টপিকগুলোর শুধু সম্পাদকীয় পড়ুন। গুরুত্বপূর্ণ তথ্য খাতায় নোট করে রাখুন। কারো লেখা জিনিস মুখস্ত করে কোন লাভ নেই। তাই নিজে লিখে কাউকে দিয়ে চেক করিয়ে নিন।

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মক টেস্টঃ অবশ্যই অবশ্যই মক টেস্ট দিতে হবে। মডেল প্রশ্ন দিয়ে বাসায় বসে মক টেস্ট দিবেন না। রিয়েল এক্সামের সাথে মিল রেখে মক টেস্ট নেয় এমন কোন জায়গায়। মক দিলে আপনার ভুলভ্রান্তিসহ অনেক প্রাসঙ্গিক বিষয় সম্পর্কে ধারণা পাবেন। নিজের প্রস্তুতি আরো ঝালিয়ে নিতে পারবেন।

আজ এ পর্যন্তই।

শুভকামনায়

হাসানুল পান্না শাকিল

উপপরিচালক, বাংলাদেশ ব্যাংক

এমবিএ, আইবিএ (ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়)